পাথর-আংটি ভাগ্য ফেরাত,এবার ৩০ টাকার লটারি ভাগ্যবদলে দিল তারই।

পাথর-আংটি ভাগ্য ফেরাত,এবার ৩০ টাকার লটারি ভাগ্যবদলে দিল তারই।

শিলিগুড়ির সাউথ কলোনিতে থাকেন হুসেন মণ্ডল।শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে-ঘুরে বিভিন্ন ধরণের পাথর ও আংটি বিক্রি করেন।নেশা ছিল লটারির টিকিট কাটার।রবিবার বিকেলে জানতে পারেন লটারিতে প্রথম পুরষ্কার পেয়েছেন তিনি।যদিও ১ কোটি টাকা ফাঁসতেই কিছুটা ভয় পেয়ে যান হুসেন বাবু।অবশেষে নিরাপত্তার জন্য এনজেপি থানার পুলিশের দ্বারস্থ হন তিনি।

হুসেন বাবু জানান, কলকাতার বারাসতের বাসিন্দা হলেও দীর্ঘদিন ধরেই শিলিগুড়ির সাউথ কলোনি এলাকায় বোনের বাড়িতে থাকেন তিনি।সেখানে থেকেই শিলিগুড়ির বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে পাথর-আংটি তিনি। কি করবেন টাকা দিয়ে? তিনি জানালেন কলকাতার বাড়িটাকে ঠিক করবেন।সেখানে তার দাদা এবং ভাই আছেন তাদের কিছু টাকা দেবেন,তিনি জানালেন আবার তো সেখানেই ফিরে যেতে হবে। টাকা পেয়ে গেলে কলকাতাতে গিয়ে নিজের ছেলে মেয়েদের ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি করাবেন বলে জানিয়ে দিলেন তিনি। এবং তার স্ত্রীর সমস্ত শখ মেটাবেন বলে জানান। এছারাও আপাতত কদিন তিনি বিশ্রাম নেবেন বলে জানালেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.